CID-Jharkhand Case: বেহিসাবি অর্থের তদন্তে গিয়ে গুয়াহাটি বিমানবন্দরে 'আটক' সিআইডি আধিকারিক 

এক রাতের জন্য ঝাড়খণ্ডের তিন কংগ্রেস বিধায়ক কেন অসমে গিয়েছিলেন, জিজ্ঞাসাবাদে সন্তোষজনক উত্তর তাঁরা দিতে পারেননি। তার হদিশ পেতেই সিআইডির দল গুয়াহাটি বিমানবন্দরে গিয়েছিল বলে সূত্রের খবর (CID-Jharkhand Case)।

CID-Jharkhand Case: বেহিসাবি অর্থের তদন্তে গিয়ে গুয়াহাটি বিমানবন্দরে 'আটক' সিআইডি আধিকারিক 

গুয়াহাটি: তিন ঝাড়খণ্ড বিধায়কের হিসাব বহির্ভূত অর্থের তদন্তে বুধবার দিল্লিতে গিয়ে বাধার মুখে পড়েন সিআইডি আধিকারিকরা (CID-Jharkhand Case)। সিদ্ধার্থ মজুমদার নামে জনৈক ব্যবসায়ীর বাড়িতে তল্লাশি চালাতে বাধা দিয়ে লোকাল থানায় তাঁদের বসিয়ে রাখা হয়। দিল্লি পুলিশের এই ভূমিকার তীব্র নিন্দা করে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের মন্তব্য ছিল, 'তদন্তে বাধা দিলে ধরে নিতে হবে ডাল মে কছু কালা হ্যায়।' এ নিয়ে হইচইয়ের মধ্যেই সিআইডি-র আর একটি দল বাধা পেলেন অসমের গুয়াহাটি বিমানবন্দরে (CID-Jharkhand Case)। একই মামলার তদন্তে রাজ্য গোয়েন্দা পুলিশের এই টিমটি বুধবার গুয়াহাটি পৌঁছয়। তদন্তে বাধা শুধু নয়, সিআইডির তরফে টুইট করে দাবি করা হয়, সিআইডির ইনস্পেক্টর-সহ চার জনকে আটক করে অসম পুলিশ ( Jharkhand MLAs unaccounted Money case)।

গত শনিবার বিকেলে হাওড়ার পাঁচলায় পুলিশের তল্লাশিতে গ্রেফতার হন ঝাড়খণ্ডের তিন কংগ্রেসে বিধায়ক-সহ পাঁচ জন (Jharkhand MLAs unaccounted Money case)। তিন বিধায়কের গাড়ি থেকে প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়। ঝাড়খণ্ড কংগ্রেসের তরফে অভিযোগ করা হয়, বিজেপির কাছ থেকে টাকা নিয়ে সরকার ফেলার চক্রান্ত করছিলেন তিন জন। যে কারণে তিন বিধায়ককে ইতিমধ্যে সাসপেন্ড করা হয়। বিধায়কদের জেরা করে সিআইডি জানতে পারে হাওড়ায় ধরা পড়ার আগে তাঁরা গুয়াহাটি থেকে ফিরেছিলেন। গত বৃহস্পতিবার গুয়াহাটি গিয়েছিলেন ওই তিন বিধায়ক। পর দিন, কলকাতায় আসেন। এক রাতের জন্য কেন তাঁরা অসমে গিয়েছিলেন, জিজ্ঞাসাবাদে সন্তোষজনক উত্তর তাঁরা দিতে পারেননি। তারই খোঁজ করতে সিআইডির দল গুয়াহাটি বিমানবন্দরে গিয়েছিল বলে সূত্রের খবর।

ALSO READ| Gold seized: বারাসতে উদ্ধার ₹৪ কোটি মূল্যের সোনা, আটক কারবারি

সে প্রমাণ জোগাড়েই বুধবার গুয়াহাটি পৌঁছেন সিআইডির তদন্তকারীরা। গুয়াহাটি বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে তাঁরা সিসিটিভি ফুটেজ দাবি করেন। অভিযোগ, তখনও অসম পুলিশ এসে সিআইডি আধিকারিকদের আটক করে। সিআইডির টুইটে জানানো হয়েছে, তদন্তকারীদের জোর করে গাড়়িতে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। 

ALSO READ| Apa: পার্থ-অর্পিতার শান্তিনিকেতনের বাড়ি ‘অপা’য় ইডির হানা