Cabbage| ক্যানসার প্রতিরোধ করে, টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়, জানুন বাঁধাকপি খাওয়ার ৭ উপকারিতা 

বাঁধাকপি (Cabbage) ছাড়া শীতের সবজির তালিকা অসম্পূর্ণ। নানা পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ এই বাঁধাকপি কিন্তু হালের কোনও সবজি নয়, বরং এর চাষ হয়ে আসছে ৪ হাজার বছর ধরে। চিন, মধ্য ও পশ্চিম ইউরোপ আর মেসোপটেমিয়ায় বাঁধাকপি আবাদের ইতিহাস মেলে। এর বৈজ্ঞানিক নাম Brassica oleracea। নানা ভাবে খাওয়া যায় শীতকালীন এই সবজি। কাঁচা, আধা সেদ্ধ, ভাপা, ভাজা এমনকি বেক করেও। আগে তো মা-ঠাকুমারা বাঁধাকপি কুচি কুচি করে কেটে কড়া রোদে শুকিয়ে বয়ামে ভরে রেখে দিতেন বছরভর খাওয়ার জন্য। এখন আর তার দরকার পড়ে না। শীতে বাঁধাকপি কেন খাবেন, (type 2 diabetes) জেনে নিন।  

Cabbage| ক্যানসার প্রতিরোধ করে, টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়, জানুন বাঁধাকপি খাওয়ার ৭ উপকারিতা 
প্রতিবেদনের সমস্ত ছবি সংগৃহীত

।। সুপর্ণা রায়

আলমারি থেকে গরমের পোশাক বের করার মতো ঠান্ডা না-পড়লেও এই মধ্য নভেম্বরে শীতের আমেজ কিন্তু চলে এসেছে। ভোরের দিকে কুয়াশাও পড়ছে। আর কিছুদিনের মধ্যে জাঁকিয়ে ঠান্ডাও পড়ে যাবে। আর এই শীতে বাড়িতে সপ্তাহে অন্তত একদিন বাঁধাকপি (Cabbage) হবে না, ভাবা যায় না। বড় রুইমাছের মাথা দিয়ে বাঁধাকপির ঘণ্ট, নিদেনপক্ষে মটরশুটি দিয়ে আলু-বাঁধাকপির তরকারি তো হয়ই। যদিও এখন বাজারে সারা বছরই বাঁধাকপি। তবুও শীতের বাঁধাকপির স্বাদই আলাদা। কিন্তু আমরা কি শুধু মুখের স্বাদ মেটাতেই বাঁধাকপি খাই? বাঁধাকপির পুষ্টিগুণের (The nutritional value of cabbage) কথা জানা আছে? অবশ্য, কোন সবজিই বা আমরা পুষ্টিগুণের কথা ভেবে খাই! তবু জানার জন্য জেনে রাখাতে পারেন। বিশেষত, যাঁরা গ্যাস-অম্বলের ভয়ে বাঁধাকপি খাবার পাতে এড়িয়ে চলেন। 

।। বাঁধাকপির পুষ্টিগুণ 

এক কাপ বা ৯০ গ্রাম বাঁধাকপিতে রয়েছে ২২ ক্যালরি শক্তি। প্রোটিন আছে ১ গ্রাম, ফাইবার ২ গ্রাম, আর প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় ভিটামিন সি-র ৫৪ শতাংশ, ভিটামিন কে-র ৮৫ শতাংশ, ফোলেটের ১০ শতাংশ, ম্যাঙ্গানিজের ৭ শতাংশ, ভিটামিন বি সিক্সের ৬ শতাংশ, ক্যালসিয়ামের ৪ শতাংশ, পটাশিয়ামের ৪ শতাংশ ও ম্যাগনেশিয়ামের ৩ শতাংশ মেলে। তবে, কোন পদ্ধতিতে খাওয়া হচ্ছে, তার ওপর নির্ভর করে বাঁধাকপির পুষ্টিগুণ। বাঁধাকপি খুব মিহি করে কেটে ১০ মিনিট রেখে সালাদে ব্যবহার করলে এর সর্বোচ্চ পুষ্টিগুণ পাওয়া যায়।

।। ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে

একাধিক গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, বাঁধাকপি বিশেষ ধরনের ক্যানসার প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে। গবেষকরা জানাচ্ছেন, বাঁধাকপি থেকে সালফারসমৃদ্ধ উপাদান গ্ল‌ুকোসাইনোলেটস তৈরি হয়, যা ক্যানসারের বিরুদ্ধে রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করে। 

।। অন্ত্রের আলসারে দাওয়াই বাঁধাকপি

ইউএস ন্যাশনাল লাইব্রেরির সমীক্ষা অনুযায়ী, বাঁধাকপির রস পান করলে পাকস্থলীর আলসার থেকে দ্রুত নিরাময় সম্ভব। অন্ত্রের আলসারেও ভালো কাজ দেয়। বুক জ্বালাপোড়া, পেট ফাঁপা ইত্যাদি সমস্যা দূর করে কাঁচা বাঁধাকপির রস।

।। বাঁধাকপি টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায় 

বাঁধাকপির ফাইবার রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণে রাখে। টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়। হজমশক্তি বাড়ায়, রক্ত থেকে কমায় মন্দ কোলেস্টেরল। এর ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস শুধু ডায়াবেটিস বলে নয়, ক্যানসার, হার্টের অসুখ, আলঝাইমার্স প্রতিরোধেও সহায়ক ভূমিকা রাখে। কোষকে সজীব রাখে।

ALSO READ| স্ট্রোকের উপসর্গ সম্পর্কে সচেতন আছেন তো

।। কিডনির অসুখে বাঁধাকপি

কিডনির অসুখ প্রতিরোধে বা যাঁরা কিডনির সমস্যায় ভুগছেন তাঁদের জন্য বাঁধাকপি একটি অপরিহার্য সবজি। যাঁদের ডায়ালিসিস করাতে হয়, চিকিৎসকেরা তাঁদের কাঁচা বাঁধাকপি খাওয়ার পরামর্শ দেন। এতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি রয়েছে, যা দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

।। চুল পড়ছে, খাদ্যতালিকায় বাঁধাকপি মাস্ট

বাঁধাকপিতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন আছে যা চুল পড়ার সমস্যা রোধ করে নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।

।। ঘা-ফোঁড়া লেগেই রয়েছে, বাঁধাকপি খান

সাধারণত ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন থেকে ফোঁড়া হয়। বারবার ফোঁড়া হলে রক্তপরীক্ষা তো করাবেনই। খাদ্যতালিকায় বাঁধাকপি রাখলে, ঘা-ফোঁড়া থেকে নিস্তার পেতে পারেন। অবশ্য রসিয়ে কসিয়ে নয়। কাঁচা বাঁধাকপির রস খেতে হবে। বাঁধাকপির পাতা কাঁচা যদি আপনি রোজ ৫০ গ্রাম করে খেতে পারেন, দাঁতের অন্য কোনও সমস্যা থাকবে না।

।। হৃৎপিণ্ডের খেয়াল রাখে, চোখের ক্ষেত্রেও উপকারী

বাঁধাকপি বিটা ক্যারোটিন সমৃদ্ধ সবজি হওয়ায় চোখের সুরক্ষায় অত্যন্ত কার্যকরী। বেগুনি বাঁধাকপি হলে তো কথাই নেই। শরীরের জন্য বিশেষ উপকারী। এতে বিটা ক্যারোটিনের মাত্রা বেশি থাকে। এ ছাড়া আছে লুটিন। হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখতে সহায়ক অন্যান্য অ্যান্টি-অক্সিডেন্টও ভরপুর রঙিন বাঁধাকপিতে। ফলে হৃৎপিণ্ডের সুস্থতায় বাঁধাকপি বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

প্রতিবেদনের সমস্ত ছবি সংগৃহীত

ALSO READ| Kidney Stones। কিডনি স্টোন ফেলে রাখবেন না