Chittagong fire: সীতাকুণ্ডে ৪০ ঘণ্টা পরেও আগুন জ্বলছে, মৃতদের শনাক্ত করতে ডিএনএ পরীক্ষা

সীতাকুণ্ডের আগুনে (Chittagong fire) মৃতদেহগুলি যে ভাবে ঝলসে গিয়েছে, তাতে অনেককেই শনাক্ত করা যায়নি। এমত অবস্থায় ডিএনএ (DNA Test) পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। মৃতদের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত না হয়ে, স্বজনদের হাতে মৃতদেহ তুলে দেওয়া যাবে না। সোমবার থেকেই ডিএনএ-র (Chittagong fire) নমুনা সংগ্রহ শুরু হয়েছে।

Chittagong fire: সীতাকুণ্ডে ৪০ ঘণ্টা পরেও আগুন জ্বলছে, মৃতদের শনাক্ত করতে ডিএনএ পরীক্ষা

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বিএম কন্টেনার ডিপোয় (Chittagong fire) অগ্নিকাণ্ডের ৪০ ঘণ্টা পরেও আগুন (Chittagong fire) সম্পূর্ণ নেভেনি। দু-রাত ধরে আগুনের সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন দমকল কর্মীরা। শামিল বাংলাদেশ সেনাও। পরিস্থিতি মোটের উপর নিয়ন্ত্রণে, এ কথা জোর দিয়ে বলতে পারছেন না উদ্ধারকারীরা। তবে, আশার কথা, নতুন করে আর আগুন (Chittagong fire) ছড়িয়ে পড়েনি।

শনিবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ আগুন লাগে (Chittagong fire) বিএম কন্টেনার ডিপোয়। হাইড্রোজেন পারক্সাইডের মতো রাসায়নিক মজুদ থাকার কারণে আগুন তীব্র আকার নেয়। দফায় দফায় বিস্ফোরণ একাধিক কন্টেনারে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এ পর্যন্ত ৪৯ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। অগ্নিদগ্ধ আরও অন্তত ৪৫০ জন। আহতদের অধিকাংশের চিকিত্‍সা চলছে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ-সহ সেখানকার একাধিক হাসপাতালে।

এদিকে, আগুনে (Chittagong fire) মৃতদেহগুলি যে ভাবে ঝলসে গিয়েছে, তাতে অনেককেই শনাক্ত করা যায়নি। এমত অবস্থায় ডিএনএ পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। মৃতদের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত না হয়ে, স্বজনদের হাতে মৃতদেহ তুলে দেওয়া যাবে না। সোমবার থেকেই ডিএনএ-র নমুনা সংগ্রহ শুরু হয়েছে। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে শিবির করে ডিএনএ-র নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। সূত্রের খবর, রিপোর্ট পেতে একমাস সময় লাগবে।  ততদিন মৃতদেহগুলি ফ্রিজার করা থাকবে।

ALSO READ| GTA Election: জিটিএ-র ৪৫ আসনেই প্রার্থী দিচ্ছেন বিমল গুরুং

সিআইডি-র চট্টগ্রাম বিভাগের প্রধান শাহনেওয়াজ খালেদের কথায়, ‘বিষয়টি খুবই জটিল এবং স্পর্শকাতর। এ কারণে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে বিষয়টি দেখা হবে। এক মাস পর আমরা রিপোর্ট দিতে পারব বলে আশা রাখি।‘ 

ALSO READ| Uttarkashi Accident: পুণ্যার্থীদের নিয়ে বাস পড়ল খাদে, উত্তরকাশীতে মৃত ২৫