কোয়েম্বাটুরের হাসপাতালে জাকির হোসেনের পায়ে অস্ত্রোপচার, ভালো আছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী

জাকির হোসেনের পরিবার জানিয়েছে, কলকাতার এসএসকেএমে এর আগে প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রীর বাঁ-পায়ে ৭-৮টি অস্ত্রোপচার হয়েছে। কিন্তু এখনও জাকির ঠিক ভাবে হাঁটতে পারছেন না। কলকাতা এসএসকেএমের কয়েক জন ডাক্তারের পরামর্শেই তাঁকে দক্ষিণ ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়। 

কোয়েম্বাটুরের হাসপাতালে জাকির হোসেনের পায়ে অস্ত্রোপচার, ভালো আছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী

কলকাতা: নিমতিতা বিস্ফোরণে আহত শ্রম দফতরের প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনের বাঁ-পায়ে শুক্রবার একটি অস্ত্রোপচার হয়েছে। কোয়েম্বাটুরের এক নামী বেসরকারি হাসপাতালে এদিন সকালে জঙ্গিপুরের প্রাক্তন এই বিধায়কের পায়ে অস্ত্রোপচার হয়। অপারেশনের পর এখন অনেকটাই সুস্থ জাকির হোসেন। সূত্রের খবর, শুক্রবার রাতেই তাঁকে জেনারেল বেডে দেওয়া হতে পারে।

জাকির হোসেনের পরিবার জানিয়েছে, কলকাতার এসএসকেএমে এর আগে প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রীর বাঁ-পায়ে ৭-৮টি অস্ত্রোপচার হয়েছে। কিন্তু এখনও জাকির ঠিক ভাবে হাঁটতে পারছেন না। কলকাতা এসএসকেএমের কয়েক জন ডাক্তারের পরামর্শেই তাঁকে দক্ষিণ ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়। 

গত বুধবার সকালে বিশেষ বিমানে জাকির হোসেন দক্ষিণ ভারতে চিকিত্‍সার জন্য উড়ে গিয়েছেন। সেখানে কোয়েম্বাটুরের হাসপাতালে ভর্তি হন। শুক্রবার ওই হাসপাতালের ডাক্তাররা মন্ত্রীর পায়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্রোপচার করেন। অস্ত্রোপচারের পর জাকির হোসেনের জ্ঞান ফিরেছে। তিনি এখন অনেকটাই সুস্থ।

চলতি বছরের ১৭ ফেব্র‌ুয়ারি কলকাতায় তৃণমূলের এক বৈঠকে যোগ দিতে আসার জন্য জাকির হোসেন নিমতিতা স্টেশনে যান। সেখানে ট্রেন ধরতে যাওয়ার সময় দু'‌নম্বর প্ল্যাটফর্মে বিস্ফোরণ হলে, গুরুতর আঘাত লাগে মন্ত্রীর। তাঁর বাঁ-পা জখম হয়। এই বোমা বিস্ফোরণে জাকির হোসেন ছাড়াও ২৪ জন আহত হয়েছিলেন। দীর্ঘ দিন কলকাতার হাসপাতালে চিকিত্‍সাধীন ছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী জাকির হোসেন।

নিমতিতা স্টেশনে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার পর মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে এসআইটি, এসটিএফ এবং সিআইডি-র বিশেষ তদন্তকারী দল গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছিল। যদিও তার পরে এই গোটা বিস্ফোরণের ঘটনার তদন্তভার গ্রহণ করেছে এনআইএ। নিমতিতা বিস্ফোরণকাণ্ডে সিআইডি ২‌ জনকে গ্রেফতার করলেও এনআইএ তদন্তভার গ্রহণ করার পর নতুন করে আর কেউ গ্রেফতার হননি। 

এই বছর বিধানসভা নির্বাচনে জঙ্গিপুর কেন্দ্র থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফের জাকির হোসেনকেই মনোনয়ন দিয়েছেন। আহত অবস্থায় ডাক্তারদের বিশেষ অনুমতি নিয়ে হেলিকপ্টার করে মুর্শিদাবাদে এসে মনোনয়নপত্র পেশ করেছিলেন জাকির হোসেন। কিন্তু নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে কোভিড অতিমারীর জন্য ওই কেন্দ্রে নির্বাচন আপাতত স্থগিত।