Krishna Kalyani Car Accident: কৃষ্ণ কল্যাণীর গাড়িতে লরির ধাক্কা, অক্ষত রায়গঞ্জের বিধায়ক, গাড়ি গেল তুবড়ে

দুর্ঘটনার পর কৃষ্ণ কল্যাণী (Krishna Kalyani Car Accident) অভিযোগ করেন, তাঁকে খুন করতে এই ঘটনা। এর পিছনে ষড়যন্ত্র রয়েছে। কারও নাম না করে রায়গঞ্জের বিধায়ক বলেন, 'যাঁরা সভায় মাইক হাতে নানা আদর্শের কথা বলেন, আমাকে খুন করতে তাঁরাই এই ষড়যন্ত্র ঘটিয়েছে।'

Krishna Kalyani Car Accident: কৃষ্ণ কল্যাণীর গাড়িতে লরির ধাক্কা, অক্ষত রায়গঞ্জের বিধায়ক, গাড়ি গেল তুবড়ে
দুর্ঘটনার কবলে কৃষ্ণ কল্যাণীর গাড়ি

মালদহ: শনিবার ভোররাতে মালদহের গাজোলে দুর্ঘটনার কবলে পড়ল রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণীর গাড়ি (Krishna Kalyani Car Accident)। যদিও গাড়িতে বিধায়ক ছিলেন না। বিধায়ককে আনতে মালদহ স্টেশনে যাচ্ছিল গাড়িটি। দুর্ঘটনায় কৃষ্ণ কল্যাণীর দেহরক্ষী ও গাড়ির চালক জখম হয়েছেন। দুর্ঘটনাটি ঘটে গাজোলের ময়নায়, ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর। গাড়ির অনেকটা অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায় (Krishna Kalyani Car Accident)। পুলিশ লরির চালককে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী শিয়ালদহ-আলিপুরদুয়ারগামী পদাতিক এক্সপ্রেসে মালদহে ফিরছিলেন। ট্রেনটি মালদহে পৌঁছোয় ভোর পৌনে ৬টায়। মালদহ টাউন স্টেশনে বিধায়ককে নিতেই তাঁর দেহরক্ষীরা ওই গাড়িতে করে যাচ্ছিলেন। গাজোলের ময়না এলাকায় জাতীয় সড়কের উপর একটি লরি পিছন থেকে বিধায়কের গাড়িতে ধাক্কা মারে। ঘড়িতে তখন ভোররাত ৩টে। পরে অন্য গাড়িতে রায়গঞ্জে ফেরেন কৃষ্ণ কল্যাণী। রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে দেহরক্ষী ও চালকের চিকিত্‍‌সা  করানো হয়। পুলিশ লরিটি বাজেয়াপ্ত করে।  গ্রেফতার করা হয়েছে চালককেও।

দুর্ঘটনার পর কৃষ্ণ কল্যাণী (Krishna Kalyani Car Accident) অভিযোগ করেন, তাঁকে খুন করতে এই ঘটনা। এর পিছনে ষড়যন্ত্র রয়েছে। কারও নাম না করে রায়গঞ্জের বিধায়ক বলেন, 'যাঁরা সভায় মাইক হাতে নানা আদর্শের কথা বলেন, আমাকে খুন করতে তাঁরাই এই ষড়যন্ত্র ঘটিয়েছে। পুলিশ তদন্ত করে দেখুক এই ষড়যন্ত্রের পিছনে কারা আছে।' তৃণমূলের একাংশও অভিযোগ করেছেন এই ঘটনার পিছনে বিধায়ককে খুনের চক্রান্ত রয়েছে।

ALSO READ| Bengal Coal Scam: কয়লা পাচারকাণ্ডে সিবিআইয়ের জালে ইসিএলের আরও এক কর্তা

একুশের ভোটের মুখে তৃণমূল ছেড়ে পা বাড়িয়েছিলেন বিজেপিতে । রায়গঞ্জ থেকে পদ্ম প্রতীকে ভোটে লড়াই করার টিকিটও পেয়ে জিতেও যান। তার কয়েক মাসের মধ্যে ফের পুরনো দল তৃণমূলে ফিরে আসেন। যদিও খাতায়-কলমে তিনি এখনও বিজেপিরই বিধায়ক। এখন তিনি আবার বিধানসভার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যানও। 

ALSO READ| Sutapa Chowdhury Murder Case: সুতপা চৌধুরী খুনে আদালতে ৩৮৩ পাতার চার্জশিট পেশ