Lifestyle Cowry Tips| সংসারে আর্থিক অনটন লেগেই রয়েছে? আপনার জন্য রইল ২১ কড়ির টোটকা

মাত্র ২১টি কড়ি (Cowries tips) দিয়ে বদলে ফেলতে পারেন নিজের অর্থভাগ্য। ডিয়ার লটারি পেয়ে রাতারাতি কোটিপতি হয়ে যাবেন না ঠিকই, ফিরতে পারে আর্থিক সচ্ছলতা (cowries bring prosperity)। কী ভাবে ? রইল তারই টোটকা (Lifestyle )।

Lifestyle Cowry Tips| সংসারে আর্থিক অনটন লেগেই রয়েছে? আপনার জন্য রইল ২১ কড়ির টোটকা
ছবি সংগৃহীত

কথায় বলে, বিশ্বাসে মিলায় বস্তু তর্কে বহুদূর। কেউ কিছু বললেই করবেন না। যদি মনে বিশ্বাস থাকে তবেই করুন। দেখবেন এমন অনেক কিছুই ঘটে যেতে পারে, যার ব্যাখ্যা বিজ্ঞানে নেই। আপনার মনে হতে পারে মিরাকল। আর্থিক কষ্টে আছেন? আপনার জন্য রইল সুখময় শাস্ত্রীর টোটকা।

চাকরির অর্ধেক জীবন কাটিয়েও এক নয়া পয়সা সঞ্চয় করে উঠতে পারেননি অনন্যা। শুধু অনন্যা এক নন, তাঁর স্বামী প্রিয়ব্রতও দুস্তুর মতো চাকরি করেন। দু'জনের যা উপার্জন তাতে স্বামী-স্ত্রী, শ্বশুর-শাশুড়ি ও এক সন্তান দেবপ্রিয়াকে নিয়ে সচ্ছল ভাবে চলে যাওয়ার কথা। কিন্তু কোনও মাসেই তা হয় না। মাস ফুরনোর আগেই কর্তা-গিন্নির মাস মাইনে শেষ। ঘাড়ের উপর ধার চেপে যায় প্রতিমাসে। এক খাতের টাকা খরচ হয় অন্য খাতে। যে কারণে মাস শুরুর আগে হিসেব করে ভাগে ভাগে টাকা রেখেও কুলোয় না। কোথা থেকে যে কী খরচ চলে আসে, যা হিসেবেও থাকে না। এই নয় যে তাঁরা স্বামী-স্ত্রী সঞ্চয়ী নন, দু'জনেই বেহিসেবি। কিন্তু যখন মাসই চলে না ধার ছাড়া, তখন সঞ্চয়ের (cowries bring prosperity) কথা তাঁরা ভাববেনই বা কী করে?

অনন্যার অফিসেরই এক সহকর্মী খোঁজ দিয়েছিলেন জ্যোতিষীর। যিনি হস্তরেখা ছাড়াও টোটকা বলে দেন। তাতে অনেকেরই উপকার হয়েছে। প্রিয়ব্রত নাস্তিক গোছের হলেও অনন্যার আবার উলটো। জ্যোতিষী দুর্বলতা রয়েছে। রোজ অফিসে বেরোনোর আগে ৫ মিনিট পুজোর জন্য ব্যয় করেন। অনন্যানর এই সমস্যায় টোটকা বলে দেন ওই জ্যোতিষী। যা করতে আহমরি কোনও খরচও হয়নি অনন্যার। কিছুদিন ধৈর্য ধরে ফল পেয়েছেন। মাসশেষে যে অর্থকষ্টের মধ্যে পড়তে হচ্ছিল, তা থেকে নিস্তার পেয়েছেন। এখন সবকিছু খরচ সামলে, সামান্য কিছু হলেও কর্তাগিন্নি জমাতে পারছেন। ফলে, এত দিন যে সুখের সন্ধানে তাঁরা ছিলেন, বিয়ের ১৫-১৬ বছর পর সেই সুখ তাঁরা অনুভব করছেন। কথায় বলে, অভাব থাকলে ভালোবাসা জানালা দিয়ে পালায়। অনেক আগে দিদার মুখে শোনা সেই প্রবাদের মর্মার্থ টের পান প্রিয়ব্রত। মানসিক চাপ কমায় অন্যন্যা-প্রিয়ব্রত এখন স্বস্তিতে আছেন। আপনার সংসারেও যদি একই রকম সমস্যা থেকে থাকে, তার জন্য রইল সুখের চাবিকাঠি।

ALSO READ| রাশিচক্রে রঙেই রাখুন বাজি, জীবন বদলে যাবে

কী লাগবে: দশকর্মার দোকান থেকে কেনা লাল একফালি শালু (লাল কাপড়ের টুকরো), গুনে গুনে ঠিক ২১টি কড়ি, লাল রঙের শাড়ি, না থাকলে সাদা লাল পেড়ে শাড়ি হলেও চলবে।         

কী করবেন: বাড়িতে ঠাকুরের সিংহাসনে লক্ষ্মীর ছবি বা মূর্তি আছে বলে ধরে নেওয়া যায়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় (চাকুরিজীবীরা অফিস থেকে ফিরে) মা লক্ষ্মীকে ভক্তি ভরে নিজের মতো করে পুজো করুন। তার আগে ভালো করে পরিষ্কার হয়ে কাচা শুদ্ধ লাল শাড়ি বা লালপেড়ে শাড়ি পরুন। কিনে আনা শালুর টুকরোর মধ্যে ২১টি কড়ি একত্রে রেখে মা লক্ষ্মীর পায়ের কাছে রাখুন। আপনার যা মনস্কামনা আপনি সেটি হাত জোড় করে মা লক্ষ্মীর সামনে মনে মনে বলুন। পারলে লক্ষ্মীর ব্রতকথা পড়ুন। এর পর কড়িগুলো ওই শালুতে জড়িতে বাড়িতে কোনও গয়নার খালি বাক্স থাকলে, তার মধ্যে রেখে দিন। না থাকলে যেখানে টাকা রাখেন, সেখানে রেখে দিন। পরের বৃহস্পতিবার আবারও ওই কড়ি মা লক্ষ্মীর পায়ের কাছে রেখে একইরকম ভাবে পুজো করুন। কয়েক সপ্তাহ এ ভাবে করার পর, পরিবর্তন নিজেই টের পাবেন। ডিয়ার লটারি নাই বা পেলেন, আর্থিক শ্রীবৃদ্ধি ঘটবে।

ALSO READ| Astrology: পছন্দের রং-ই বলে দেবে আপনি কেমন মানুষ

শেষে আবারও বলার, মনে বিশ্বাস না-থাকলে, ঠাকুরে ভক্তি না-থাকলে ফল পাবেন না। বিশ্বাসটাই বড় কথা। ভালো থাকুন, আনন্দময় হয়ে উঠুক আপনার ভবিষ্যতের দিনগুলো।