Nirmala Mishra's Death: প্রয়াত নির্মলা মিশ্র, শ্রোতা হারাল হাসি-কান্নার চির সাথীকে!

রবিবার সকাল ১০টা নাগাদ নির্মলা মিশ্রের (Nirmala Mishra) মরদেহ রবীন্দ্রসদনে নিয়ে যাওয়া হবে।

Nirmala Mishra's Death: প্রয়াত নির্মলা মিশ্র, শ্রোতা হারাল হাসি-কান্নার চির সাথীকে!
প্রবীণা সংগীত শিল্পী নির্মলা মিশ্র আর নেই!

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রয়াত সংগীতশিল্পী নির্মলা মিশ্র (Nirmala Mishra)। শনিবার রাত ১২টা ৫মিনিটে চেতলার বাড়িতে হৃদরোগ আক্রান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে শিল্পীর বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। রেখে গেলেন স্বামী প্রদীপ দাশগুপ্ত ও একমাত্র পুত্রকে।

রাতে তাঁর দেহ সাদার্ন অ্যাভিনিউয়ে এনজি মেডিকেয়ার নার্সিংহোমে রাখা থাকবে। রবিবার সকাল ১০টা নাগাদ নির্মলা মিশ্রের (Nirmala Mishra) মরদেহ রবীন্দ্রসদনে নিয়ে যাওয়া হবে। শিল্পীর চিকিৎসক কৌশিক চক্রবর্তী জানিয়েছেন, দীর্ঘ দিন ধরে তিনি অসুস্থ ছিলেন। চিকিৎসার জন্য গত ৫ বছরে বেশ কয়েক বার হাসপাতালে ভর্তিও হয়েছিলেন। তিন বার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। কিন্তু আর তিনি হাসপাতালে যেতে চাইছিলেন না। শনিবার রাতে তাঁর শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়, এর পরই তিনি মারা যান।

ALSO READ| শতবর্ষ পেরিয়ে অখিল বন্ধু ঘোষ: পিয়াসী মরু

নির্মলা মিশ্রর (Nirmala Mishra) জন্ম ১৯৩৮ সালের ২১ অক্টোবর, দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগর মজিলপুরে। বাবা মোহিনীমোহন মিশ্র, মা ভবানী দেবী। বাবা এবং বড় দাদা মুরারীমোহন মিশ্র ছিলেন সেই সময়ের বিখ্যাত সংগীত শিল্পী। ছোটবেলা থেকেই সাংগীতিক পরিবেশ এই বড় হয়ে ওঠা নির্মলার। সংগীতের তালিমও বাবা ও দাদার কাছেই।

ALSO READ| Ramkumar Chatterjee। টপ্পার রাম রাজ্য

১৯৬০ সালে ওড়িয়া সংগীত পরিচালক বালকৃষ্ণ দাসের সংগীত পরিচালনায় লোকনাথ ছবিতে গান গেয়ে সংগীত জীবনের শুরু। সেই সময়ই বাংলা আধুনিক গানও রেকর্ড করা শুরু। তাঁর বিখ্যাত আধুনিক গানগুলি হচ্ছে 'এমন একটা ঝিনুক খুঁজে পেলাম না', 'সেই একজন দিও না তাকে মন', 'আবেশে মুখ রেখে', 'বলো তো আরশি', 'আমি তো তোমার হাসি-কান্নার চিরদিনের সাথী', 'কাগজের ফুল বলে', 'ও তোতা পাখি রে', 'উন্মনা মন স্বপ্নে মগন' ইত্যাদি।

(উপরের এই গানটি 'মুখুজ্যে পরিবার' ছবিতে মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়ের সুরে প্রতিমা বন্দ্যোপাধ্যায় ও নির্মলা মিশ্রের দ্বৈত গাওয়া। আজও কথায়-সুরে এক অমলীন গান।)

এ ছাড়া তাঁর গাওয়া জনপ্রিয় ছায়াছবির গানগুলি হচ্ছে: তুমি আকাশ এখন যদি, আমি হারিয়ে ফেলেছি গানের সাথীরে, রিমিঝিমি রিমিঝিমি, আবিরে রাঙালো কে আমায়, চোখের মণি হারিয়ে খুঁজি।

বাংলা, হিন্দি, ওডিয়া, অসমীয়া-সহ বিভিন্ন ভাষায় গান গেয়েছিলেন শিল্পী। বার্ধক্যজনিত অসুখে বেশ কিছু দিন ধরেই শয্যাশায়ী ছিলেন। পেয়েছেন সংগীত সন্মান-সহ অগণিত পুরস্কার ও শ্রোতাদের ভালোবাসা। তাঁর গাওয়া 'ও তোতা পাখিরে' আজও সমান জনপ্রিয়।