Partha-Arpita: পার্থ-অর্পিতার ১৪ দিন জেল হেফাজত, ঠিকানা এবার প্রেসিডেন্সি

ব্যাঙ্কশাল আদালত শুক্রবার পার্থ-অর্পিতাকে (Arpita Mukherjee-Partha Chatterjee) ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে। ১৮ অগস্ট পুনরায় ২ জনকে আদালতে পেশ করতে হবে।

Partha-Arpita: পার্থ-অর্পিতার ১৪ দিন জেল হেফাজত, ঠিকানা এবার প্রেসিডেন্সি
জেল হেফাজতে পার্থ-অর্পিতা

কলকাতা: আজাদি কা অমৃত মহোৎসবে জেলেই কাটাতে হবে পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে (Partha-Arpita)। ১৮ অগস্ট পর্যন্ত পর্যন্ত পার্থর ঠিকানা প্রেসিডেন্সি, অর্পিতার প্রেসিডেন্সি (মহিলা) সংশোধনাগার। ব্যাঙ্কশাল আদালত শুক্রবার পার্থ-অর্পিতাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে। ১৮ অগস্ট পুনরায় ২ জনকে আদালতে পেশ করতে হবে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী শর্তসাপেক্ষে মক্কেলের জামিনের জন্য আদালতে আবেদন করেছিলেন। এ-ও জানান, পার্থ বিধায়ক পদ ছেড়ে দিতেও প্রস্তুত। কিন্তু আদালত সেই আবেদনে  সাড়া দেয়নি। অর্পিতার আইনজীবী অবশ্য এদিন জামিনের আবেদন জানাননি। তবে, অর্পিতার প্রাণনাশের আশঙ্কা করে নিরাপত্তা বাড়ানোর কথা বলেন। উলটো দিকে, ইডির তরফে জেল হেফাজতের আবেদন জানানো হয়েছিল। আদালত ইডির আবেদন মঞ্জুর করে।

এদিন পার্থর জেল হেফাজতের কথা শুনে কুণাল ঘোষ বলেন, 'আমাকে মিথ্যে অভিযোগে ফাঁসানো হয়েছিল। এই পার্থ চট্টোপাধ্যায় তখন আমাকে পাগল বলে সম্বোধন করেছিলেন। একজন সাধারণ বন্দি হিসাবেই যেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে দেখা হয়।' যদিও তাঁর এই মন্তব্যের সঙ্গে দলের কোনও যোগ নেই বলে স্পষ্ট করে দেন কুণাল।

ALSO READ| Partha Chatterjee News: পার্থর মেয়ে-জামাইকে ইডি-র তলব

এসএসসি কেলেঙ্কারিতে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে (Partha Chatterjee) জিজ্ঞাসাবাদ করা কালীনই অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের (Arpita Mukherjee) নাম জানতে পারে ইডি। অর্পিতার টালিগঞ্জ ও বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালিয়ে নগদ ৫০ কোটি টাকা উদ্ধার করেন তদন্তকারীরা। তার পরেই পার্থ-অর্পিতাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর থেকে এতদিন ইডির হেফাজতে ছিলেন। এ বার ইডির আবেদনক্রমে জেল হেফাজতে পাঠানো হল। 

ALSO READ| ঝাড়খণ্ড কাণ্ডে চাঞ্চল্যকর তথ্য, এর আগেও নগদ ৭৫ লক্ষ লেনদেন হয়েছে কলকাতায়