Thankuni: থানকুনির হাজারো গুণ! পেটের রোগ তো সারেই, যৌবন ধরে রাখতেও জুড়ি নেই 

শহরের বাজারেও থানকুনি পাতা দুর্লভ নয় (Thankuni leaf benefits in Bengali)। গ্রামের মাঠেঘাটে যত্রতত্র এই ভেজষ উদ্ভিদটি পাওয়া যায়। আপনি নিয়মিত থানকুনি পাতা খেতে পারলে, একাধিক অসুখের হাত থেকে নিষ্কৃতি পাবেন।

Thankuni: থানকুনির হাজারো গুণ! পেটের রোগ তো সারেই, যৌবন ধরে রাখতেও জুড়ি নেই 
থানকুনি পাতার হাজারো গুণ...

আ-মরি বাংলা: কথায় বলে, পেট ভালো থাকলে মেজাজও ফুরফুরে থাকে। গ্রামের মানুষ এখনও পেট খারাপে বা পেটের অসুখে থানকুনি পাতায় (Thankuni leaf benefits in Bengali) ভরসা রাখেন। চট করে অ্যান্টিবায়োটিক তাঁরা খেতে চান না। শহরের মানুষের অবশ্য সে ধৈর্য বা ফুরসত নেই। ভেষজ চিকিত্‍সকেরা দাবি করেন,  থানকুনি পাতা নিয়মিত খেতে পারলে, পেটের অসুখে কোনও দিন ভুগতে হবে না। শরীর-স্বাস্থ্য সতেজ থাকে। ছোট বয়স থেকে খাওয়াতে শুরু করলে বুদ্ধির বিকাশ হয়। গ্রামের মাঠেঘাটে যত্রতত্র এই ভেজষ উদ্ভিদটি পাওয়া যায়। শহরের বাজারেও থানকুনি পাতা দুর্লভ নয়। আপনি নিয়মিত থানকুনি পাতা (Thankuni leaf benefits in Bengali) খেতে পারলে, একাধিক অসুখের হাত থেকে নিষ্কৃতি পাবেন।  

।। থানকুনির নবরত্ন

১. পেটের রোগ নির্মূল করতে থানকুনির বিকল্প নেই। নিয়মিত খেলে যে কোনও পেটের অসুখ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

২. শুধু পেটের গন্ডগোল নয়, আলসার,  হাঁপানি, এগজিমা-সহ নানা চর্মরোগ সেরে যায় থানকুনি পাতা খেলে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ে।

ALSO READ| Coffee and Cancer: নিয়মিত কফি খেলে কি ক্যানসার হতে পারে?

৩. স্নায়ুতন্ত্রকে সক্রিয় রাখতে সাহায্য করে থানকুনি পাতা।

৪. যৌবন ধরে রাখতে সাহায্য করে থানকুনি পাতার রস। যৌন দুর্বলতা দূর করে। প্রতিদিন একগ্লাস দুধে ৫-৬ চা চামচ থানকুনি পাতার রস মিশিয়ে খেলে, চেহারায় লাবণ্য  আসে।

৫. থানকুনি পাতা মস্তিষ্কের কোষ গঠনে সাহায্য করে, রক্তের সঞ্চালন বাড়ায়। ব্রাহ্মী শাকের মতোই স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে।

ALSO READ| নাগাড়ে কাশি ফুসফুস ক্যানসারের উপসর্গ হতে পারে

৬. পুরনো ক্ষত ওষুধে না সারলে, থানকুনি পাতা সিদ্ধ করে তার জল লাগালে অনেক সময় সেরে যায়। সদ্য ক্ষতে থানকুনি পাতা বেটে লাগালেও ক্ষত নিরাময় হয়।

৭. থানকুনি পাতা চুল পড়া বন্ধ করে। নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।

৮. দাঁতের অসুখেও থানকুনির জুড়ি মেলা ভার। মাড়ি থেকে রক্ত পড়া বন্ধ করে। দাঁতে ব্যথা করলে একটা বড় বাটিতে থানকুনি পাতা সিদ্ধ করে, সেই জল ছেঁকে নিয়ে কুলকুচি করলে উপকার পাওয়া যায়।

ALSO READ| বায়োপসি করলে কি ক্যানসার ছড়ায়? 

৯. মৃত কোষের কারণে গা রুক্ষ হয়ে অনেক সময়ই শুষ্ক ছাল ওঠে। থানকুনি পাতার রস মৃত কোষগুলিকে পুনর্গঠনে সাহায্য করে ত্বক মসৃণ করে।

ALSO READ|  স্ট্রোকের উপসর্গ সম্পর্কে সচেতন আছেন তো