The Yellow Turtle: মহাপঞ্চমী থেকে লক্ষ্মীপুজো... বাঙালির বাহারি আহারে ইয়েলো টার্টলে পেটপুজোর আমন্ত্রণ 

আক্ষরিক অর্থেই বাঙালির 'ভোজ কয় যাহারে'...! ইয়েলো টার্টল স্পেশাল বাঙালি পোলাও তো রয়েছেই। চাইলে সুগন্ধী ঘিয়ের ভাত, গাওয়া ঘিয়ে ভাজা লুচিও পাবেন। গন্ধরাজ লেবুর শিখাঞ্জি থেকে বাহারি নানা পদ...

The Yellow Turtle: মহাপঞ্চমী থেকে লক্ষ্মীপুজো... বাঙালির বাহারি আহারে ইয়েলো টার্টলে পেটপুজোর আমন্ত্রণ 

নিজস্ব প্রতিবেদন, কলকাতা: বাঙালির দুর্গাপুজো (Durga Puja) আর বাঙালির পেটপুজো (Pet Puja With Bengali Cuisine) সেই কবেই সমার্থক হয়ে গিয়েছে। পুজো তো আর শুধু পুজো নয়, বাঙালির উত্‍‌সবও। আর রসনাতৃপ্তি ছাড়া উত্‍‌সব কখনও পূর্ণতা পায় নাকি! তা যে উত্‍‌সবই হোক। আর দুর্গাপুজোর বিষয়টাই আলাদা। বছরের ৩৬০ দিনে নানা কাজে ব্যস্ত থাকলেও পুজোর পাঁচ দিনের পরিকল্পনা অনেক আগে থেকেই তৈরি হয়ে যায়। কলকাতার উত্তর থেকে দক্ষিণ, পূর্ব থেকে মধ্য-- ষষ্ঠী থেকে দশমী কোথায় যাবেন, আশাকরি, ইতিমধ্যে ছকে ফেলেছেন। সেইসঙ্গে পেটপুজোর ঠিকানাও। আপনি বা আপনার বন্ধু-স্বজন-পরিবার ভোজনরসিক হলে, পছন্দের রেস্তোরাঁর তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে ফেলুন ইয়েলো টার্টল (The Yellow Turtle)। পুজোয় গড়িয়াহাট-গোলপার্ক চত্বরে গেলে পূর্ণদাস রোডের এই রেস্তোরাঁর রসনাতৃপ্তি থেকে নিজেকে বঞ্চিত করবেন না। পুজোর চার দিনে একান্তই সময় করে উঠতে না পারলে, লক্ষ্মীপুজোর মধ্যে একবার অন্তত সপরিবার অথবা সবান্ধব ঢুঁ মারুন। নিরাশ যে হবেন না, বাজি রেখে বলা যায়।

এশিয়ান এবং কন্টিনেন্টাল খাবার যাঁরা ভালোবাসেন, তাঁদের কাছে নতুন করে ইয়েলো টার্টল সম্পর্কে বলার কিছু নেই। এশিয়ান এবং কন্টিনেন্টাল ডিশের জন্য পছন্দের গন্তব্য। তবে, পুজোর আয়োজন এখানেও ষোলোআনা বাঙালিয়ানা। আক্ষরিক অর্থেই বাঙালির 'ভোজ কয় যাহারে'...! ইয়েলো টার্টল স্পেশাল বাঙালি পোলাও তো রয়েছেই। চাইলে সুগন্ধী ঘিয়ের ভাত, গাওয়া ঘিয়ে ভাজা লুচিও পাবেন। গন্ধরাজ লেবুর শিখাঞ্জি, পাঁচমিশালি সবজি, ধনেপাতা কাঁচালঙ্কা মুরগি, পাঁঠার মাংসের ঝোল, সরষে নারকেল চিংড়িও পাবেন। থাকছে মহিষাসুর স্পেশাল ড্রিংক। শেষপাতে থাকবে আমের আইস-ক্রিম, ডাবের পুডিং, নলেন গুড়ের আইসক্রিম। যা খুশি আয়েশ করে খান।

উত্‍‌সবে খানাপিনা তো হবেই। সেইসঙ্গে পকেটের কথাও ভাবতে হয়। সাধ্যের মধ্যেই হবে আপনার স্বাদপূরণ।  জিভে-জল-আনা এক-একটা মেনু ১০৫ টাকা থেকে ৪৮৫ টাকার মধ্যে। 

দ্য ইয়েলো টার্টলের (The Yellow Turtle) মালকিন অপেক্ষা লাহিড়ি জানালেন, এশিয়ান ও কন্টিনেন্টাল খাবারই এতদিন তাঁরা পরিবেশন করছিলেন। তবে, ক্রেতাদের অনুরোধই এ বার বাঙালি খাবার নিয়ে হাজির। তাঁরাই নিত্যনতুন মেনু সংযোজনে সাহস জুগিয়েছেন। সকলকে পুজোর নিমন্ত্রণও করে রাখলেন অপেক্ষা। দুর্গা পঞ্চমী থেকে লক্ষ্মীপুজোর মধ্যে ইয়েলো টার্টলে এসে বাঙালি রান্না চেটেপুটে তৃপ্তি করে খান।

ALSO READ| Biswa Bangla Sharad Samman 2022: বিশ্ববাংলা শারদ সম্মানের আবেদনপত্র বিলি করছে রাজ্য

হ্যাঁ, মহাপঞ্চমী থেকেই শুরু হয়ে যাচ্ছে উত্‍‌সবের বাঙালি ভোজ। রবিবার, ৯ অক্টোবর, লক্ষ্মীপুজোর দিন পর্যন্ত এই উত্‍‌সবের আমেদ পাবেন বাঙালির বাহারি আহারে। বাড়তি পাওনা এশিয়া কাপ খেলোয়াড়দের উপস্থিতি। ভারতের অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেটার করণ লাল,  বাংলা রঞ্জি দলের ক্রিকেটার প্রতীক গুপ্ত, ঋত্বিক রায়চৌধুরী, রণজোত সিং খায়রা, ভারতীয় গলফার অনিশা আগরওয়াল এবং ইউটিউবার শৌলী ভট্টাচার্য বিভিন্ন দিনে উপস্থিত থাকবেন। 

ALSO READ| গঙ্গার পূর্ণতা দিয়েই এ বার দুর্গার পূর্ণতা ধরতে চেয়েছে নারকেলডাঙার পূর্ব কলিকাতা সর্বজনীন