Manabendra Mukhopadhyay || কেন আরও ভালোবেসে যেতে পারে না হৃদয়...

অনেক কঠিন রাগ-রাগিনী সুর-তাল-লয়ের গান মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায় (Manabendra Mukherjee Song) অবলীলায় এত সহজ করে গাইতেন..যে, গানটা শোনার পর মনে হতো ওমা এটা এমন কী আর কঠিন গান!!

Manabendra Mukhopadhyay || কেন আরও ভালোবেসে যেতে পারে না হৃদয়...

১৯৫৭-য় সুর সৃষ্টি এই গানকে তিনি বলতেন 'ভূতে পাওয়া গান'। সব ধারার গানেই ছিল তাঁর অনায়াস যাতায়াত। আধুনিক, ছায়াছবি থেকে যাত্রাগানও তাঁর সুরারোপে উজ্জ্বল হয়ে আছে। কাজি নজরুলের গানকে দিয়েছি‍লেন অন্য মাত্রা। তিনি মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায় (Manabendra Mukhopadhyay)। ১১ অগস্ট, বৃহস্পতিবার শিল্পীর ৯২তম জন্মদিনে শ্রদ্ধার্ঘ্য। সঙ্কর্ষণ বন্দ্যোপাধ্যায় 

আমি এতো যে তোমায় ভালোবেসেছি মনে হয় এ যেন গো কিছু নয়... একটুও সন্দেহ নেই মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়ের (Manabendra Mukhopadhyay) সৃষ্ট গানগুলোর মধ্যে অন্যতম সেরা সৃষ্টি এই গান। সর্বকালের সেরা একটি প্রেমের গানও বলা যায়। শ্যামল গুপ্তর কথায় নিজের সুরে গাওয়া 'আমি এত যে তোমায় ভালোবেসেছি' ৬৫ বছর পরেও আজও সমান ভাবে আধুনিক। এই গানের  ভালোবাসার আকুতি মৃন্ময়ী থেকে চিন্ময়ীতে প্রকাশিত হয়। যেন অসীম ভালোবাসার স্রোতে অনন্তে অবগাহন করায়। এই গান যেমন ভাষায় সমৃদ্ধ সুরে ঐশ্বর্যময়, গায়নে মাধুর্যময় তেমনই আধ্যাত্মিক রসে পরিপূর্ণ। তাই সৃষ্টির এত বছর পরেও এই গানে আজও রসিক শ্রোতা আত্মমগ্ন হয়ে পড়েন। 

তাইতো অবিসংবাদিত সুরস্রষ্টা সলিল চৌধুরীর জহুরী চোখ জাত চিনে নিতে ভুল করেননি। তাই তিনি ১৯৬২-র পুজোর গানে এমন একটি গান মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়কে (Manabendra Mukhopadhyay Song) দিয়ে গাওয়ালেন যা আগে অন্য কেউ ভাবতেই পারেননি। গানটি জাতে টপ্পা, প্রয়োগে এবং প্রকাশে আধুনিক। গানটির প্রথম লাইন 'আমি পারিনি বুঝিতে পারিনি'।

এই গানের প্রায় তিন' বছর পরে একই সুরে সলিল চৌধুরী হিন্দিতে 'চাঁদ ওউর সূর্য' ছবিতে গাইয়ে ছিলেন 'তেরি ইয়াদ না দিল সে' লতা মঙ্গেশকারকে দিয়ে। সলিল চৌধুরীর কাছে গানটি শুনে লতাজি বলেছিলেন, 'এই গান ভীষণ কঠিন গান, কেউ গাইতে পারবে না সলিলদা।' তখন সলিল চৌধুরী লতাজিকে হেসে বলেছিলেন, 'বাংলায় এই গানটি অলরেডি রেকর্ডেড। গেয়েছেন মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায় (Manabendra Mukherjee)।' অনেক দিন পর কলকাতার এক  জলসায় দু''জনে দেখা হতেই লতাজি বলেছিলেন, 'আপনিই সেই মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায় (Manabendra Mukhopadhyay Live) যে ওই দু'টি ভীষণ কঠিন গান গেয়েছিলেন আমি তো কিচ্ছু পারিনি।'

অনেক কঠিন রাগ-রাগিনী সুর-তাল-লয়ের গান মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায় (Manabendra Mukherjee Song) অবলীলায় এত সহজ করে গাইতেন..যে, গানটা শোনার পর মনে হতো ওমা এটা এমন কী আর কঠিন গান!..সংগীতজ্ঞ এই মহাপণ্ডিত মানুষটির প্রতি তাই সংগীতপ্রেমী মানুষ ও তাঁর সমসাময়িক গায়ক-গায়িকাদের শ্রদ্ধা ছিল অপরিসীম। কেবল রেকর্ড বা ছবিতেই নয়, সেই সময় জলসার পর জলসা জমিয়ে রাখতেন মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায় (Manabendra Mukherjee Song)। সেই সময় মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়ের গান (Manabendra Mukhopadhyay Song) এবং রাধাকান্ত নন্দীর তবলা এক অন্য রসায়ন তৈরি করত। শিল্পী মানবেন্দ্রর গানের প্রশংসক ছিলেন নজরুল সমসাময়িক নলিনীকান্ত সরকার।

এমন সব মানুষের টানে প্রিয় জায়গা পুদুচেরির অরবিন্দ আশ্রমে মাঝেমাঝেই ছুটে যেতেন মানবেন্দ্র। উদাত্ত কণ্ঠে গাইতেন ভক্তিগীতি থেকে আসর জমানো সব ধারার গান। তেমনি কিছু কালোত্তীর্ণ লাইভ রেকর্ডিং শিল্পীর ৯২তম জন্মদিন উপলক্ষে প্রকাশিত হয়েছে ইউটিউবে। মানবেন্দ্র প্রেমীদের কাছে এ এক অনন্য প্রাপ্তি।

ALSO READ| আমি এত যে তোমায় ভালোবেসেছি…