Chittagong fire: সীতাকুণ্ডের অগ্নিকাণ্ডে মৃত বেড়ে ৪৯, নাশকতা কি না, তদন্ত করবে হাসিনা সরকার

চট্টগ্রামের অগ্নিকাণ্ড (Chittagong fire) নিছকই দুর্ঘটনা নাকি নাশকতা তা তদন্ত করবে বাংলাদেশ সরকার। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ।

Chittagong fire: সীতাকুণ্ডের অগ্নিকাণ্ডে মৃত বেড়ে ৪৯, নাশকতা কি না, তদন্ত করবে হাসিনা সরকার

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কন্টেনার ডিপোয় অগ্নিকাণ্ডে (Chittagong fire) মৃতের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে। রবিবার সন্ধ্যায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সরকারি ভাবে ৪৯ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডের (Chittagong fire) সময় কন্টেনারগুলিতে দফায় দফায় বিস্ফোরণেই জেরেই এত বিপুল প্রাণহানি। মৃতদের ভিড়ে দমকলের পাঁচ কর্মীও রয়েছেন। আহতের সংখ্যা কমপক্ষে সাড়ে ৩০০। নিছকই দুর্ঘটনা (Chittagong fire) নাকি নাশকতা তা তদন্ত করবে বাংলাদেশ সরকার। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ।

ঘটনার তদন্তে ইতিমধ্যে ৫ সদস্যের কমিটি গড়েছে ফায়ার সার্ভিস। আহতদের চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল-সহ আশপাশের হাসপাতালগুলিতে চিকিৎসা চলছে। অগ্নিদগ্ধ তিন জনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে আনা হয়েছে।

ALSO READ| Chittagong container Depot Fire: চট্টগ্রামের অগ্নিকাণ্ডে মৃত বেড়ে ৩৩, তদন্ত কমিটি গড়ল দমকল

শনিবার রাত পৌনে ১১টা নাগাদ আগুন লাগে। একটি কন্টেনার থেকে অন্য কন্টেনারগুলিতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। রসায়নিক থাকার কারণে জোরালো বিস্ফোরণ ঘটে। বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এত বড় একটি ঘটনা। এটি দুর্ঘটনা নাকি নাশকতা, সেটিও খতিয়ে দেখা হবে।’  তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী নিজেও পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন।

ALSO READ| Chittagong fire: কন্টেনারে তীব্র বিস্ফোরণেই বিপত্তি, ভোরেও আগুন জ্বলছে চট্টগ্রামে